প্রথম পাতা , শীর্ষ খবর , ব্রেকিং নিউজ , মতলব উত্তর , হাইমচর

২১ আগস্ট মামলার রায় আজ ঃচাঁদপুরের নিহত আতিক ও কুদ্দুছের পরিবার সর্বোচ্চ শাস্তি চায়

person access_time 2 months ago access_time Total : 34 Views

স্টাফ রিপোর্টার ঃ অবশেষে ১৪ বছর পর ২০০৪সালে ঢাকায় আওয়ামী লীগের জন সভায় গ্রেনেড হামলার মামলার রায় আজ ঘোষিত হচ্ছে। এ রায়ে অপরাধীদের যাতে সর্বোচ্চ শাস্তি হয়, সে দাবী জানিয়েছে গ্রেনেড হামলায় নিহত চাঁদপুরের মতলবের আতিক ও হাইমচরের স্বেচ্ছাসেবকলীগ এর নেতা কুদ্দুছের পরিবার। তারা এতোদিন এ রায়ের অপেক্ষায় বুকফাঁটা নিরব কান্নায় ছিল। আজ রায় হবে এই কথা যেনে নিহত দু’টি পরিবারের মাঝে কিছুটা হলেও বেদনার স্বস্তি ফিরে এসেছে। তাদের ভাষায় প্রকৃত দোষীরা শাস্তি পেলে নিহতদের আত্মা শান্তি পাবে।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলার ঘটনা ঘটে। ওই হামলায় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গুরুতর আহত হন। মহিলাবিষয়ক সভানেত্রী আইভি রহমানসহ নিহত হন ২৪ জন। আহত হন শতাধিক নেতাকর্মী। ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলার অধিকতর তদন্ত শেষে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, হুজি নেতা মুফতি হান্নান, সাবেক মন্ত্রী আবদুস সালাম পিন্টু ও লুৎফুরুজ্জামান বাবরসহ ৫২ জনকে আসামি করা হয়। দীর্ঘ বিচারকাজ শেষে আজ বুধবার ওই ঘটনায় দায়ের করা দুই মামলার রায় ঘোষণা হবে। ঐ গ্রেনেড হামলায় রায়ের অপেক্ষায় ছিল স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা শহীদ আব্দুল কুদ্দুস পাটওয়ারীর মা আমেনা বেগম। কিন্তু তিনি আর রায় দেখে যেতে পারেনি। মৃত্যুর বলে গেছে যারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের যেন ফাঁসি হয়। নিহত কুদ্দুছের ভাই হুমায়ুন পাটওয়ারী জানান, আজ রায় হবে। কিছুটা হলেও ভাইয়ের হত্যাকারীদের বিচার হচ্ছে। তবে আমরা এ হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবী করছি। যেন এই বাংলার মাটিতে এ ধরনের হামলার শিকার কারো না হতে হয়। একই গ্রেনেড হামলায় নিহত হয়েছে মতলব উত্তরের আওয়ামীলীগ কর্মী আতিক উল্যাহ সরকার। আতিকের স্ত্রী লাইলী বেগম দীর্ঘ ১৪ বছর চার সন্তানকে নিয়ে স্বামীর হত্যার বিচার চেয়ে যাচ্ছে। এবার বিচার হবে, এ কথা শুনে লাইলী বেগমও অপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবী করছে। তাহলে তার স্বামীর আত্মার শান্তি পাবে বলে সে জানান।

শেয়ার করুনঃ
content_copyCategorized under