প্রথম পাতা , শাহরাস্তি

শাহরাস্তি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হুমায়ুন কবিরের মতবিনিময়

person access_time 7 months ago access_time Total : 193 Views

মো. মাসুদ রানা,শাহরাস্তি ঃ এখনো তফছিল ঘোষণা হয়নি। তার পরও শাহরাস্তিতে বইছে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনী হাওয়া। গতকাল শনিবার বিকেলে শাহরাস্তি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. হুমায়ুন কবির মজুমদার শাহরাস্তি প্রেসক্লাব সাংবাদিকদের সঙ্গে ওয়ারুক বাজারে তার কার্যালয়ে মত বিনিময় করেন। মত বিনিময়কালে সাংবাদিকদের জানান,আমি ১৯৬৮সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগে যোগদানের মাধ্যমে রাজনীতি শুরু করি। এর পর ১৯৬৯ গণঅভ্যুথানে অংশ গ্রহন, ১৯৭০ সালে জাতীয় নির্বাচনে প্রচারণা অংশ গ্রহন, ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধুর আহবানে মুক্তিযুদ্ধে বি,এল,এফ(মজিব বাহিনী)সংগঠনের মাধ্যমে অংশ গ্রহন,১৯৭৫ সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ তাৎকালিন হাজিগঞ্জ থানা শাখার সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করি এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান শহীদ হওয়ার পর বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় কাজ করি। পরবর্তিতে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ হাজিগঞ্জ থানা এবং শাহরাস্তি উপজেলা আওয়ামীলীগের সহিত বিভিন্ন কাজ করে আসছি। তিনি আরো বলেন, ১৯৯২ সালে চাঁদপুর জেল আ’লীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য,১৯৯৭ সালে শাহরাস্তি উপজেলা আ,লীগের আহবায়ক, ২০০৫সালে চাঁদপুর জেলা আ’লীগের উপদেষ্টা, ১৯৮১ সালে রাষ্ট্রপতি ও ১৯৮৬ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণা করি। ১৯৮৮ সালে ইউপি নির্বাচনে বৃহত্তর টামটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হই। একই পদে ২০১১ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করি। ২০১১সালে বৃহত্তর টামটা ইউনিয়ন বিভক্ত হওয়ার পর টামটা উত্তর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদে আবার নির্বাচিত হই, ২০১৪ সালে উপজেলা নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের পক্ষে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করি, দলীয় দ্বন্দ্বের কারণে অকৃতকার্য হই,বর্তমানে জেলা পরিষদের সদস্য ও চাঁদপুর জেলা আওয়ামীলীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য হিসেবে রয়েছি। এছাড়া এলাকার বিভিন্ন সামজিক প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব পালন করে আসছি। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দলীয় মনোনয়নপত্র চাইবো। তবে যোগ্যতা ভিত্তিতে আমি শতভাগ দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়ে আশাবাদি। মনোনয়ন পেলে নির্বাচন করবো। দল আমাকে মনোনয়ন না দিলেও দলের পক্ষে যাকে মনোনয়ন দেয়া হবে তার পক্ষে অবশ্যই কাজ করবো। তিনি আরো বলেন, আমিতো দল পরিবর্তন করিনি। তা ছাড়া দলের কাছে আমি মনোনয়ন প্রত্যাশীত হতে পারি। জাতীয় সংসদ সদস্য হলেন জনগণের প্রতিনিধি এবং আমাদের সকলের অভিভাবক। উনার সঙ্গে আমার কোন দুরত্ব নেই,উনার সহযোগীতা নিয়েই আমি দলীয় মনোনয়ন চাইবো।

প্রথম পাতার নিচে ২কলামে নিউজ যাবে

content_copyCategorized under