প্রথম পাতা , শাহরাস্তি , ব্রেকিং নিউজ

শাহরাস্তিতে চতুর্থ করোনা রোগী শনাক্ত

person access_time 7 days ago access_time Total : 34 Views

মোঃ মাসুদ রানা, শাহরাস্তিঃ শাহরাস্তিতে চতুর্থ করোণা রোগী শনাক্ত হয়েছে। রবিবার বিকেলে(১৭মে) শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের (আরএমও) ডাঃ অচিন্ত্য কুমার চক্রবর্তী বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শাহরাস্তি উপজেলা থেকে এ পর্যন্ত কোভিড-১৯ সন্দেহে ১১৮ জনের দেহের নমুনা (স্যাম্পল) পাঠানো হয়েছে। তার মধ্যে এই পর্যন্ত ১১৪ জনের শরীরের করোনা ভাইরাসের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। অর্থাৎ আগত রিপোর্টে ৪জনের দেহে করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়। এদিকে রবিবার আসা নতুন ওই রিপোর্টে শাহরাস্তি উপজেলার চিতোষী পূর্ব ইউপি’র কাদরা গ্রামের জনৈক ব্যক্তির পুত্র শাহরিয়ার সুমন (২৩) করোণা পজিটিভ শনাক্ত হয়।বর্তমানে তিনি নিজবাড়িতে হোম কোয়ারেন্টিনে ও আইসোলেশন রয়েছেন। ওই যবুক শাহরাস্তির রোগী হিসেবে অন্তর্ভুক্তি প্রসঙ্গে জানায়, সে ঢাকাতে দীর্ঘ দিন অবস্থান শেষে মনোহরগঞ্জ উপজেলা বাইশগাঁও ইউপির বাইশগাঁ গ্রামে জনৈক এক খালার বাড়িতে ঢাকা থেকে এসে অবস্থান নিয়েছিল। সেখানে সে অসুস্থ হয়ে পড়লে মনোহরগঞ্জ উপজেলার নাগরিক দেখিয়ে করোনা ভাইরাস শনাক্তের জন্য নমুনা দেয়। পরে তার রিপোর্ট পজিটিভ হলে মনোহরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তৃপক্ষ ওই রোগিকে শাহরাস্তি উপজেলায় আইসোলেশন এ পাঠিয়ে দেয়, এবং তার শনাক্তকৃত পজিটিভ রিপোর্ট শাহরাস্তি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রেরণ করে। ওই রিপোর্টের ভিত্তিতে শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পরামর্শ শাহরাস্তি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি )শাহ আলমের উপস্থিতিতে ওই যুবকের বাড়িটি লকডাউন করে দেওয়া হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরও জানান, তিনি করোণা পজিটিভ শনাক্ত বাড়িটির অধিবাসীর জন্য প্রয়োজনীয় খাদ্য ফল (রসদ)ও মানসিকভাবে সুস্থ থাকার জন্য দিকনির্দেশনা বাণী সম্বলিত বক্তব্য দিয়ে ওনার দপ্তরে লোক পাঠিয়েছেন। যার ফলে ঢাকা থেকে আগত ও মনোহরগঞ্জে শনাক্তকৃত ওই রোগী শাহরাস্তি উপজেলার অধিবাসী কারণে এখানে শনাক্ত রোগী হিসেবে গন্য হলো। অন্যদিকে ওই রোগী কুমিল্লা জেলার মনোহরগঞ্জ উপজেলায় শনাক্ত হওয়ায় কারণে তার নাম চাঁদপুর জেলা অন্তর্ভুক্ত নেই। এছাড়া প্রথম করোনা সনাক্ত রোগী প্রাণ কৃষ্ণ নেগেটিভ রিপোর্ট নিয়ে তার গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলায় কোয়ারেন্টিনে রয়েছে। একই ভাবে গত(৯মে)শাহরাস্তি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জনৈক স্বাস্থ্যকর্মীর পুত্র ও চাঁদপুর একটি বেসরকারি হাসপাতালের প্যাথলজি টেকনিশিয়ান গোলাম মোস্তফা (৩২) এবং গত ৫(মে) শাহরাস্তিতে প্রথম করোনা পজিটিভ রোগী লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার পঞ্চাশোর্ধ প্রাণ কৃষ্ণের ছোট ভাই (শ্যালক) সঞ্জয় শীলের মেয়ে জয়া রানী শীল (১৩) রিপোর্ট করোনা পজিটিভ আসে। এই নিয়ে আগত রিপোর্টে অত্র উপজেলায় ৪জন করোনা রোগী পজিটিভ সনাক্ত হলো।এদিকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের (আরএমও) আরো জানান, শনাক্তকৃত রোগীদের হোম কোয়ারেন্টিনে ও আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। তাদের পরিবারের অন্য সদস্যদেরকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

content_copyCategorized under