প্রথম পাতা , শাহরাস্তি , ব্রেকিং নিউজ

শাহরাস্তিতে করোনা উপসর্গে কলেজ অধ্যক্ষের মৃত্যু ॥ শনাক্ত ৪ ॥ আক্রান্ত বেড়ে ২৩

person access_time 7 months ago access_time Total : 301 Views

মোঃ মাসুদ রানা, শাহরাস্তি ঃ চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে চিতোষী ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষ এবং কলেজ শিক্ষক সমিতির সহসভাপতি মোঃ আবদুর রহীম(৫৯) মৃত্যু বরন করেছেন। ১০জুন বুধবার বেলা আড়াইটায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জ্বর সর্দি কাশি শ^াসকষ্টসহ করোনা উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেন। একই দিন শাহরাস্তি থানা পুলিশের এক এসআই ও নারী কনস্টেবলসহ ৪জন করোণায় আক্রান্ত হয়েছেন।এতে আক্রান্ত বেড়ে ২৩ জনে দাঁড়িয়েছে। বুধবার বিকেলে চাঁদপুর সিভিল সার্জন অফিস থেকে প্রেরিত রিপোর্টে শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের (আরএমও) ডাঃ অচিন্ত্য কুমার চক্রবর্তী বিষয়টি নিশ্চিত করেন। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শাহরাস্তি উপজেলা থেকে এ পর্যন্ত কোভিড-১৯ সনাক্তকরনে ২৪৯ জনের দেহের নমুনা (স্যাম্পল) পাঠানো হয়। এই পর্যন্ত আসা ১৮৯ জনের নমুনা রিপোর্টের মধ্যে দেহের করোনা ভাইরাস নেগেটিভ এসেছে। অর্থাৎ নতুন করে আসা ৪ জনের নমুনা পজিটিভ রিপোর্টসহ মোট করোণা সংক্রমনে আক্রান্ত রোগী সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২৩ জনে। নতুন করে আসা কোডিভ-১৯ রিপোর্টে শাহরাস্তি থানার এসআই কামাল হোসেন, কনস্টেবল জরিনা আক্তার,উপজেলার টামটা উত্তর ইউপি’র বলশীদ গ্রামের (আব্দুল আলী মুন্সি বাড়ী), আব্দুল আলির পুত্র মনির হোসেন করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হন।একই গ্রামের (দৈল বাড়ীর) আব্দুল করিম এর পুত্র ডাঃ আব্দুল মোমেন সম্প্রতি করোনা উপসর্গ নিয়ে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। আজ আসা নতুন করে আসা রিপোর্টে নিষ্পত্তি হলো তিনি করোনা ভাইরাস পজিটিভ নিয়ে মৃত্যু বরণ করেণ। এই নিয়ে অত্র উপজেলায় আক্রান্ত ২৩ জন রোগীর মধ্যে ২জন মৃত্যুবরণ করেন এবং ২জন সুস্থ হয়েছে। আক্রান্ত বাকী ১৯ জন উপজেলায় বিভিন্ন স্থানে হোম কোয়ারেন্টিনে ও আইসোলেশন চিকিৎসাধীন রয়েছেন।এদিকে শাহরাস্তি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ শাহ আলম (এসআই- কনস্টেবল) দুই পুলিশ সদস্য শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স এর আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি অবস্থায় সুস্থ্য রয়েছেন বলে নিশ্চিত করেণ। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শিরীন আক্তার নতুন আক্রান্তদের বাড়ি লকডাউন করতে শাহরাস্তি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ শাহ আলম ও সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানদের পরামর্শ প্রদান করেন। করোণা শনাক্ত অধিবাসীদের জন্য প্রয়োজনীয় খাদ্য মানসিকভাবে সুস্থ থাকার জন্য দিকনির্দেশনা বাণী সম্বলিত বক্তব্য দিয়ে সংশ্লিষ্টদের পাঠিয়েছেন । এদিকে কলেজ অধ্যক্ষ মৃত্যুকালে স্ত্রী, ২মেয়ে,২ছেলে সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান। বুধবার রাত ৯ টায় কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার শরীফপুর হাজীবাড়ীতে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে মৃতদেহ দাফনের কথা রয়েছে।

content_copyCategorized under