প্রথম পাতা , শীর্ষ খবর , ব্রেকিং নিউজ

মহান শহীদ দিবস ও আন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনে চাঁদপুরে ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহন

person access_time 6 months ago access_time Total : 109 Views

স্টাফ রিপোর্টার ঃ মহান শহীদ দিবস ও আন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবসে চাঁদপুরে ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহন করা হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ১১টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলণ কক্ষে দিবসটি উদ্যাপনকল্পে প্রস্তুতি সভায় এ কর্মসূচী গ্রহন করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, সরকারি কর্মসূচির সাথে মিল রেখে আমরা আমাদের আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের কর্মসূচি পালন করবো। আন্তার্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে চাঁদপুরের বই মেলা মানসম্মত করা হবে। সবাইকে এ দিবসে অংশগ্রহণ করতে হবে। স্থানীয় পত্রিকাগুলোতে বিশেষ কোড পত্র ও সংবাদ প্রকাশ করার আহ্বান জানান। তাই এই অনুষ্ঠান সুন্দর ভাবে সফল করার জন্য আপনাদের সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শওকত ওসমানের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, পুলিশ সুপার মো. জিহাদুল কবির বিপিএম, পিপিএম, চাঁদপুর ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. এ কে এম মাহাবুবুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, স্বাধীনতা পদক প্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ডা. সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী, চাঁদপুর প্রেসক্লাব সভাপতি শহীদ পাটওয়ারী, জেলা শিক্ষা অফিসার সফিউদ্দিন, সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা কানিজ ফাতেমা, অ্যাড. সাইফ উদ্দিন বাবু, দৈনিক চাঁদপুর কন্ঠের বার্তা সম্পাদক এ এইচ এম আহসান উল্যাহ প্রমুখ। মতবিনিময় সভায় বেশ কিছু সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়েছে। সিদ্ধান্ত সমুহের মধ্যে রয়েছেঃ মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আগমি ১৭ থেকে ২০ ফেব্রুয়ারী এবং ২২ ও ২৩ ফেব্রুয়ারী মোট ৬দিন সন্ধ্যায় সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট ও সাংস্কৃতিক চর্চাকেন্দ্রের ব্যাবস্থাপনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হবে। ১৭ ফেব্রুয়ারী থেকে ২৩ ফেব্রুয়ারী কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত বই মেলার আয়োজন করা হবে। ২০ ফেব্রুয়ারী বিকেল ৫টায় শহীদ মিনারে কবিতা আবৃত্তি ও নাটিকা মঞ্চায়ন হবে। ২০ ফেব্রুয়ারী দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে ভাষা শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে শহীদ মিনার ব্যাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হবে। ২১ ফেব্রুয়ারী স্থানীয় সকল দৈনিক পত্রিকা বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ করা হয়। ২০ ও ২১ ফেব্রুয়ারী পৌরসভার উদ্যোগে শহরের নতুন বাজার সড়ক, অঙ্গিকার পার্দদেশ, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্তর, শপর্থ চত্তর, ইলিশ চত্তর, চিত্র লেখা মোড়, নতুন বাসস্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন সড়কে বাংলা বর্ণ্যামালা ও ফেস্টুন দ্বারা সজ্জিত করা হবে। ২১ ফেব্রুয়ারী সকল স্কুল, কলেজসহ ও অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান, শিক্ষক/শিক্ষিকাগণ নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে উপস্থিতিসহ ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে দিবসের প্রত্যুষে শহীদ দিবসের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ সঙ্গীত পরিবেশন সহকারে শহরের প্রধান প্রধান সড়কে প্রভাতফেরী। ঐ দিন শহীদের স্বরনে জেলার সকল সকল স্কুল, কলেজসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং সরকারি অধা-সরকারি ও স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানসমূহের ভবনে সঠিক নিয়মে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ভাবে উত্তোলন করতে হবে। সকল স্কুল কলেজসহ অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বই পাঠ, স্বরচিত ছড়া ও কবিতা প্রতিযোগীতা এবং কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় সর্বসাধারণের জন্য ২১ সংক্রান্ত প্রবন্ধ প্রতিযোগীতা আয়োজন করবে এবং আন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবসের তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা করতে হবে। জেলা সকল মসজিদে বাদ জোহর এবং মন্দির, গীর্জায় শহীদের রুহের মাগফিরাত কামনা দোয়া কামনা করতে হবে। বিকেল ৩টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে চিত্রাংকন, সঙ্গীত, আবৃত্তি ও সুন্দর হাতের লেখা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। সন্ধ্যায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে ১৯৫২ এর ভাষা আন্দোলনের ইতিহাসের উপর পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপনা এবয় ভাষা শহীদের অমর স্মৃতির উদ্দেশ্যে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হবে। রাত ৮টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমীর আয়োজনে সাংস্কৃতিক পরিবেশনা হবে।

content_copyCategorized under