শেষ পাতা , ব্রেকিং নিউজ , মতলব উত্তর

মতলব উত্তর আনন্দ বাজার-আমিরাবাদ রাস্তা ধ্বসে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হবার আশংকা

person access_time 5 days ago access_time Total : 47 Views

শামসুজ্জামান ডলার ঃ সংস্কারের অভাবে মতলব উত্তর উপজেলার গুরুত্বপূর্ন আনন্দ বাজার – আমিরাবাদ বাজার রাস্তার কয়েকটি অঞ্চলে ধসে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে। গত ১০ বছরেও যে রাস্তার ঢালে মাটির কোন কাজ হয়নি। ৩কিলোমিটার রাস্তার কয়েকটি স্থানের পুকুরে মৎস্য চাষ, এ রাস্তায় দানবীয় মালবাহী ৬চাকার ট্রাক্টর নিয়মিত চলাচল ও রাস্তার ঢাল থেকে মাটি কেটে রাস্তা সংস্কারের কারনে রাস্তার এই দুরবস্থা। উপজেলার ফরাজীকান্দি ইউনিয়নের আমিরাবাদ বাজার থেকে বেড়িবাঁধের বাহির দিয়ে চরকালিয়া উচ্চ বিদ্যালয় হয়ে আনন্দ বাজারের কিছা আগে নয়াকান্দি পর্যন্ত রাস্তা। এলজিইডি’র এ রাস্তাটি আমিরাবাদ থেকে গোলাম মাওলাদের বাড়ী সংলগ্ন, বাবুল মাস্টারের বাড়ী, সেকান্দার মাস্টারের বাড়ী, সাধু-মধু বেপারীদের বাড়ী, কাশেম সর্দারের বাড়ী, ডা. তাহের আলীর বাড়ী, বিল্লাল দেওয়ানের বাড়ী, জসিম মুন্সির বাড়ী সংলগ্ন রাস্তাটি ঝুকিপূর্ন হয়ে পড়েছে। তবে এর মধ্যে সাধু-মধু বেপারীর বাড়ী সংলগ্ন ও বিল্লাল দেওয়ানদেও বাড়ী সংলগ্ন স্থান দিয়ে রাস্তাটি মারাত্বক ঝুকিপূর্ন হয়ে পড়েছে। দ্রততম সময়ের মধ্যে রাস্তা সংস্কার করা না হলে যে কোন সময় রাস্তাটি ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবার আশংকা করা হচ্ছে। এ রাস্তার আমিরাবাদ থেকে গৌরাঙ্গ বাজার পর্যন্ত ৬টি পুকুরে মাছ চাষ এবং গৌরাঙ্গ বাজার থেকে নয়াকান্দি পর্যন্ত ৬টা পুকুরে মাছ চাষ রাস্তা রক্ষায় কিছুটা প্রতিবন্ধকতা রয়েছে বলে মনে করেন কেউ কেউ। এ রাস্তাটি উপজেলার সর্ববৃহৎ ফরাজীকান্দি ইউনিয়নের সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ন রাস্তা। এ রাস্তা ধসে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেলে আমিরাবাদ বাজার, উপজেলার প্রচীনতম চরকালিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, ফরাজীকান্দি কামিল মাদ্রাসা, নেদায়ে ইসলাম মহিলা মাদ্রাসা, ফরাজীকান্দি সোনালী ব্যাংক, ফরাজীকান্দি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, চরকালিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ফরাজীকান্দি ইউনিয়ন পরিষদ, ৩ইউনিয়নের একমাত্র আমিরাবাদ ভ’মি অফিস, গৌরাঙ্গ বাজার, ফরাজীকান্দি পোষ্ট অফিস, গৌরাঙ্গ বাজার কমিউনিটি ক্লিনিকসহ অনেক গুরুত্বপূর্ন প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগাযোগে সীমাহীন দুর্ভোগে পড়তে হবে। গৌরাঙ্গ বাজার ও উপজেলার ২য় বৃহৎ আনন্দ বাজারের সকল প্রকার মালামাল নদী পথে আমিরাবাদ বাজারে এসে পৌঁছালে ৬চাকার মালামালবাহী দানবীয় গাড়িটি দিয়ে মালামালগুলো বাজার দু’টিতে পৌঁছানো হয়। রাস্তার দু’পাশে কয়েকটি মাছ চাষের পুকুর ও বর্ষাকাওে স্বাভাবিকভাবেই রাস্তার দু’পাশে অনেক পানি থাকে। এরই মধ্যে মালবাহী ভারি যানবাহন চলাচলের কারনে রাস্তাটির বিভিন্ন অংশে ধসে ঝুকিপূর্ন হয়ে পড়েছে। এ ব্যাপারে স্থানীয় ভ’মি অফিসের তহসীলদার কামরুজ্জামান জানান, রাস্তা ভেঙ্গেগেলে ৩ইউনিয়নের মানুষের আমিরাবাদ ভ’মি অফিসে সেবা নিতে আসা জনসাধারনের জন্যে খুবই কষ্টকর হয়ে পড়বে। স্থানীয চরকালিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দলিল উদ্দিন জানান, শিক্ষার্থীদের স্কুলে আসার রাস্তা ভেঙ্গেগেলে শিক্ষার্থীদের স্কুলে আসা-যাওয়ার ক্ষেত্রে চরম দুর্ভোগে পড়তে হবে। এ ব্যপারে উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) এনামূল হক এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, এখানে রাস্তার অবস্থা খারপা তা আমরা জানি কিন্তু দু’পাশে মাছ চাষ ও ৬চাকার মালামালবাহী ভারি যান চলাচলের কারনে রাস্তা রক্ষা করা যাচ্ছে না। তাই আমরা এ রাস্তার কোন প্রকল্প নেইনি।

শেয়ার করুনঃ
content_copyCategorized under