প্রথম পাতা , চাঁদপুর সদর , শীর্ষ খবর , ব্রেকিং নিউজ , কচুয়া , জাতীয়

বড়স্টেশন ঘুরতে গিয়ে বজ্রপাতে কচুয়ার দুই শিশুসহ একই পরিবারের ৪ জন নিহত

person access_time 2 weeks ago access_time Total : 40 Views

এ কে আজাদ : চাঁদপুরের বজ্রপাতে দুই শিশুসহ একই পরিবারের ৪ জন নিহত হয়েছে। রোববার দুপুরে চাঁদপুর তিন নদীর মিলনস্থল শহরের বড়স্টেশন মোলহেড এলাকা এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার আন্দিরপাড় গ্রামের সুলতান মিয়ার স্ত্রী অহিদা বেগম (৬০), তার মেয়ে রেহেনা বেগম (৩২), নাতি ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র সাব্বির (১০) ও নাতনি সামিয়া (৮)। বজ্রপাতে একই পরিবারের ৪ জনের মৃত্যুর ঘটনায় হাসপাতাল এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। বজ্রপাতে নিহত অহিদা বেগমের মেয়ে শাহিদা বেগম জানায়, কচুয়া উপজেলা থেকে রোববার দুপুরে পরিবার নিয়ে ডাক্তার দেখাতে চাঁদপুর

শহরে আসেন তার মা অহিদা বেগম ও বোন রেহেনাসহ তার দুই সন্তান। শাহিদা বেগম আরো জানান, ডাক্তার দেখানোর আগে তারা শহরের বড়স্টেশন মোলহেড এলাকায় মেঘনা নদীতে নৌকাযোগে ঘুরতে বের হন। দুপুরে বৃষ্টি শুরু হওয়ায় তারা নৌকা থেকে নেমে নদীতীরে গাছের ছায়ায় আশ্রয় নেন। এ সময় প্রচন্ড বৃষ্টিপাতে পাশাপাশি বিকট শব্দে কয়েকটি বজ্রপাত হয়। এতে ওই পরিবারের ৪ সদস্য বজ্রপাতের আঘাতে গুরুতর আহত হন। চাঁদপুর সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) পলাশ বড়–য়া জানান, স্থানীয় লোকজন বজ্রপাত গুরুতর আহতদের চাঁদপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের

মৃত ঘোষণা করেন। এই ঘটনার খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে আসেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান। এ সময় তিনি নিহত পরিবারের স্বজনদের শান্তনা জানান। জেলা প্রশাসক জানান, নিহতদের জন্য ৩০ হাজার টাকা করে সহায়তা প্রদান করা হয় এবং তাদের বাড়িতে মৃতদেহ পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে। ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. সুজাউদ্দৌলা রুবেল বলেন, চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়েও বজ্রপাতে নিহতদের বাঁচানো সম্ভব হয়নি। তাদের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ঝলসানোর চিহ্ন ছিল। হাসপাতালে আনার আগেই তাদের মৃত্যু হয়।

content_copyCategorized under