প্রথম পাতা , ফরিদগঞ্জ , অনামিকা

ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়রের বিরুদ্ধে কাউন্সিলরদের সংবাদ সম্মেলনে অনাস্থা

person access_time 12 months ago access_time Total : 210 Views

নুরুল ইসলাম ফরহাদ, ফরিদগঞ্জ ঃ ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়রের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম ও অশোভন আচরণের বিরোদ্ধে অনাস্থা দাবী করে সংবাদ সম্মেলন করেছে বিক্ষুব্ধ কাউন্সিলাররা। তবে উত্থাপিত অভিযোগ গুলো মেয়র শোধরালে জনগণের স্বার্থে তারা আবারো সমঝোতা করতে রাজি। মঙ্গলবার বিকালে ফরিদগঞ্জ জেলা পরিষদ ডাকবাংলোতে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় ৯জন পুরুষ ও মহিলা কাউন্সিলার উপস্থিত ছিলেন। প্যানেল মেয়র খলিলুর রহমানসহ তাদের লিখিত বক্তব্যে বলেন, বর্তমান পরিষদের শুরু থেকে নিয়মিত মাসিক সভা হয় না। টেন্ডার ছাড়াই মেয়র নিজে তার লোকজন দিয়ে উন্নয়ন কাজ করছেন। কয়েকটি সড়কের নাম উল্লেখ করে তিনি বলেন, এগুলোর কাজ না হলেও বিল উত্তোলন করে নিয়ে গেছে ঠিকাদাররা । এসব বিষয়ে কাউন্সিলাররা কিছুই জানেন না। পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে উপস্থিত কাউন্সিলাররা জানান, গত ১৫দিন পুর্বে তারা সকল কাউন্সিলার টি- আর কাবিখা সঠিক নিয়মে প্রদান, বয়স্কসহ বিভিন্ন ভাতা সঠিক ভাবে বন্টন, তাদের সম্মানি প্রদানসহ ৬দফা দাবী করে মেয়রকে লিখিত আবেদন করেছেন। এ নিয়ে কথা বলতে গেলে প্যানেল মেয়র মোহাম্মদ হোসেন লাঞ্ছিত হন। এতদ সত্ত্বেও পৌরবাসীর বৃহত্তর স্বার্থে তারা পৌর মেয়রকে সুপথে ফিরে আসার আহ্বান জানান তারা। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্যানেল মেয়র মোহাম্মদ হোসেন, কাউন্সিলার মজিবুর রহমান, জামাল হোসেন, হারুনুর রশিদ, ইসমাইল হোসেন সোহেল, মহসিন তালুকদার, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলার ফাতেমা বেগম, কুসুম বেগম। এদিকে সংবাদ সম্মেলনের শেষ পর্যায়ে প্যানেল মেয়র খোতেজা বেগম উপস্থিত হলেও তিনি বলেন, একটি প্রকল্প নিয়ে প্যানেল মেয়র মোহাম্মদ হোসেনের সাথে ঝামেলা হওয়ার পর এই অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। এব্যাপারে ফরিদগঞ্জ পৌর মেয়র মাহফুজুল হক তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, কাউন্সিলারা বকেয়া সম্মানি ভাতার দাবীতে এই আন্দোলন করছে। তিনি জানান, পৌরসভার আর্থিক অবস্থা ভাল না হওয়ায় কাউন্সিলার ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন বকেয়া রয়েছে

শেয়ার করুনঃ
content_copyCategorized under