প্রথম পাতা , শীর্ষ খবর , ব্রেকিং নিউজ , জাতীয়

ফরিদগঞ্জে মাহফিলের তবারক খেয়ে শত শত মানুষ অসুস্থ ঃ ২ শতাধিক অসুস্থ রোগী হাসপাতালে ভর্তি

person access_time 1 week ago access_time Total : 26 Views

স্টাফ রিপোর্টার ঃ ফরিদগঞ্জ উপজলোর ৩নং সুবিদপুর পূর্ব ইউনয়িনরে উভারামপুর পাটোয়ারী বাড়িতে বার্ষিক ওরস ও দোয়ার মাহফিলের তবারক খেয়ে শত শত নারী-পুরুষ ও শিশু অসুস্থ হয়ে পড়ছে। শুক্রবার ও শনিবার এই দুই দিনে কয়েকটি গ্রামের লোকজন চাঁদপুর আড়াইশ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল, মতলব আইসিসিটি হাসপাতালসহ জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। চিকিৎসকরা অসুস্থ রোগীদের চিকিৎসা দিতে হিমশিম খেয়েছে। চিকিৎসকরা জানান, ভয়ের কিছুআ নেই। অসুস্থরা দ্রুত সুস্থ হয়ে যাবে।

এলাকাবাসী জানান, গত ৯ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার উভারামপুর পাটোয়ারী বাড়ির বার্ষিক ওরস ও দোয়ার মাহফলি অনুষ্ঠিত হয়। পরদিন সকালে ১১ জানুয়ারি শুক্রবার ওরস মাহফিলে তবারক (তেহেরি : ডাল, গরুর মাংস, মসলা দিয়ে তৈরি) খায়। খাবার খাওয়ার ৪/৫ ঘন্টা পরে অনেকের বমি ও পাতলা পায়খানা শুরু হয়। অসুস্থদের বেশীরভাগ নারী, পুরুষ ও শিশু প্রাথমিকভাবে হাসপাতালে ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় চিকিৎসা সেবা নিচ্ছে।

জেলার মতলব দক্ষিণ উপজেলাার আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্রে (মতলব কলেরা হাসপাতাল) প্রায় ২শ’ রোগী চিকিৎসা নিচ্ছে। অসুস্থ কয়েকজন হলো উভায়রামপুর এলাকার কোহিনুর, রেনু, নুসরাত, শামছুন্নাহার। সাদ্রা মাদ্রাসার শিশু শিক্ষার্থীরা, সুরুঙ্গচাল গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী সাবিনা বেগম, চৌরাঙ্গা গ্রামের আঃ হাইয়ে মেয়ে সুমাইয়া (১৬), শাহরাস্তির ইদ্রিছ মিয়ার ছেলে মোঃ হোসেন (৩৬), নাটেহরা গ্রামের মৃত আঃ হকের ছেলে আঃ সামাদ ও তার স্ত্রী মমতাজ (৩৬)। তাদেরকে মতলব কলেরা হাসপাতাল ও আলীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক আবু সাদেক কাশেম বলেন, দুই দিনে শত শত রোগীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েছি। অসুস্থরা বেশিরভাগ উভারামপুর, বাসারা, নুরপুর, ইসলামপুর, কাইতাড়া ও হাজীগঞ্জ উপজেলার শমশেপুর, প্রতাপপুর, সাদ্রা, রামচন্দ্রপুর গ্রামের।

মাহফিল কমিটির সভাপতি আলহাজ¦ নুরুল ইসলাম পাটওয়ারী প্রতি বছরের ন্যায় এবারও পীর সাহেবে মৃত্যুবার্ষিকীতে ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করেছে। তিনি জানান. তেহেরী রান্নায় ব্যবহৃত পানি ও উপকরণ পরীক্ষা- নিরীক্ষার জন্য চাঁদপুর পাঠানো হয়েছে। চাঁদপুরের ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন মোঃ সফিকুল ইসলাম জানান, অসুস্থ রোগীরা আশংকামুক্ত ।এদিকে কোন ওয়াজ মাহফিলে তবারক বিতরনের পূর্বে অবশ্যই তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার দাবী জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

শেয়ার করুনঃ
content_copyCategorized under