প্রথম পাতা , চাঁদপুর সদর , শীর্ষ খবর , ব্রেকিং নিউজ

নাজিরপাড়ায় দিনে দুপুরে বাসায় দুর্ধর্ষ চুরি ও রাতে বিদ্যুতের তার চুরি বাড়ছে

person access_time 1 month ago access_time Total : 34 Views

স্টাফ রিপোর্টার ঃ শহরের নাজিরপাড়ায় দিনে রাতে চলছে দুর্ধর্ষ চুরি। দিনে বাসার দরজার হেজবুল কেটে ও রাতে বাসা বাড়ির বিদ্যুৎ সংযোগের মূল লাইনের তার কেটে নিচ্ছে একটি সংঘবদ্ধ চোরের দল। কোরবানী ঈদের দিন থেকে শুরু করে এই পর্যন্ত বেশ কয়েকটির বাসার হেজবুল কেটে স্বর্ণালংকার, নগদ টাকাসহ অন্যান্য জিনিসপত্র লুট করে নিয়েছে। এ ব্যাপারে বর্তমানে নাজিরপাড়াবাসী আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। চুরি হওয়া বাসার অভিভাবকরা ধারনা করছে, দিন-রাত নাজিরপাড়ার মোড়ে মোড়ে একটি কিশোর চক্র আড্ডা দিয়ে আসছে। হয়তো তাদের মাধ্যমেই এই ঘটনা ঘটতে পারে। তবে তদন্ত করে মূল হোতাদের বের করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দ্রুত ব্যবস্থা নিবেন এটাই নাজিরপাড়াবাসীর আশাবাদ।
নাজিরপাড়া ডা. সফিউল্লার বাসার চতুর্থতলার ভাড়াটিয়া চাঁদপুর সরকারি কলেজের সমাজ কল্যাণ বিভাগের শিক্ষিকা ফাতেমা বেগম বাসার দরজা বন্ধ করে ঈদ করতে শরীয়তপুরের নিজ বাড়িতে যায়। গতকাল সোমবার বিকাল ৩টার দিকে তার বাসার মূল দরজার হেজবুল কেটে ঘর তছনছ করে সব লুটে নেয়। চোরেরা ভিতরের দরজার হেজবুলগুলো কেটে ফেলে। খবর পেয়ে তারা বাড়ি থেকে রওনা দিয়েছে। একই দিন একই বাড়ির ভাড়াটিয়া আসমা বেগমের হেজবুল কেটে দুর্ধর্ষ চুরি হয়েছে। আসমার স্বামী বিদেশে থাকেন। ঈদে তিনি এক মেয়ে ও এক ছেলেকে নিয়ে ঢাকায় বেড়াতে গেছেন। তিনিও খবর পেয়ে চাঁদপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন। এ দু’টি বাসায় কি কি লুট হয়েছে, তারা আসলে জানা যাবে। একই দিন একই সময় একই বাড়ির দ্বিতীয়তলায় ভাড়াটিয়ার কচুয়া রহিমানগর বঙ্গবন্ধু সরকারি ডিগ্রি কলেজের অধ্যাপক জাকির হোসেন পাটওয়ারী বাসার একটি দরজায় তালা দিয়ে অপর দরজা দিয়ে ঢুকে বাসায় অবস্থান করছিল তার স্ত্রী ও সন্তানরা। চোরের দল না বুঝে ঐ বাসার দরজার হেজবুলও কেটে ফেলে। কিন্তু দরজার ভিতরে ছিটকারী দেয়া থাকায় ঘরে ঢুকতে পারেনি। অল্পের জন্য রক্ষা পেল। একই বাসার নিচতলায় ঈদের দিন বিকালে আদমজী ক্যান্টনমেন্টের একাউন্ট অফিসার জহির খানের বাসায় মূল দরজার হেজবুল কেটে তার ওয়ার্ড্রপ থেকে নগদ ৪২ হাজার টাকা লুটে নেয়। চুরির মাত্র ঘন্টাখানিক আগে কুরবানীর মাংশ বাসায় রেখে বাহিরে গিয়েছিল তারা। এরই মধ্যে এই ঘটনা ঘটায়। এভাবে অনেক অজানা বাসা বাড়িতেও প্রায় প্রতিদিন চুরি হচ্ছে। এছাড়া চোরের একটি চক্র গভীর রাতে বাসা বাড়ির বিদ্যুতের মূল লাইন কেটে নিয়ে যাচ্ছে। এছাড়া পুরান বাজার ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ দেলওয়ার হোসেনের নাজিরপাড়াস্থ বাসার বিদ্যুতের মূল লাইন, চাঁদপুর সরকারি কলেজের প্রফেসর নাজির উল্ল্যাহ মজুমদার বাসার বিদ্যুতের মূল লাইনসহ আরো অনেকের বিদ্যুতের মূল লাইন কেটে নিয়ে যায়। এসব চুরির পরও বাড়ির মালিকরা পুলিশকে জানায়নি। কারন জানিয়ে কোন লাভ হয় না বলে তারা জানান। নাজিরপাড়াবাসী অভিযোগ করেছেন, নাজিরপাড়ার অভ্যন্তরীণ মোড়গুলোতে ইদানিং কিছু উচ্ছৃঙ্খল যুবক বা কিশোর দিনে রাতে আড্ডায় মত্ত থাকে। রাত ১টার পর কিছু কিশোরের আনাগোনাও থাকে। কমিউনিটি পুলিশ এদের বিপক্ষে কথা বললে বা বাঁধা দিলে তাদের উপর হুমকি আসে। বর্তমানে নাজিরপাড়াবাসী আতঙ্কে আছে। সংশ্লিষ্ট প্রশাসন প্রয়োজনে সভা করে এদের বা সবার অভিভাবকদের ডেকে সভা করে রাত ১২টার পর ঘরের বাহিরে থাকলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তাহলে হয়তোবা কিছুটা স্বস্তি পাবে নাজিরপাড়াবাসী।