প্রথম পাতা , শীর্ষ খবর , ফরিদগঞ্জ , ব্রেকিং নিউজ

জাতি সকল মুক্তিযোদ্ধা ও বীর নারীর অবদান শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করে-মুহম্মদ শফিকুর রহমান এমপি

person access_time 4 months ago access_time Total : 266 Views

আবু হেনা মোস্তফা কামাল/গাজী মমিন, ফরিদগঞ্জ ঃ ফরিদগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় নানান কর্মসূচীর মধ্যে দিয়ে মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। দিবসের প্রথম প্রহরে স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পন করার মধ্যে দিয়ে বিজয় দিবসের কার্যক্রম শুরু হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের প্রধানকে সঙ্গে নিয়ে জাতীয় সংসদ সদস্য ও জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মুহম্মদ শফিকুর রহমান পুষ্পমাল্য অর্পন করেন। সকাল ৮টা নাগাদ ফরিদগঞ্জ এ আর পাইলট মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে মাঠে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে কোরাআন তেলোয়াত ও গীতা পাঠ শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, এক মিনিট নীরবে দাঁড়িয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন, শান্তির প্রতীক পায়রা উড়ানো ও সালাম গ্রহণ করেন মুহম্মদ শফিকুর রহমান এমপি। কুচকাওয়াজ ও শারিরীক কসরতে অংশ গ্রহণকারী সেরা কয়েকটি দল নির্বাচন ও পুরস্কৃত করা হয়। কুচকাওয়াজ মাঠে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মুহম্মদ শফিকুর রহমান এমপি বলেন, যাঁদের সর্বোচ্চ ত্যাগের বিনিময়ে স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে, বিজয়ের এ মহান দিনে আমি শ্রদ্ধা জানাই সে সব বীর মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক-সমর্থক, যুদ্ধাহত ও শহিদ পরিবারের সদস্যসহ সর্বসস্তরের জনগনকে। যাঁরা আমাদের বিজয় অর্জনে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে অবদান রেখেছেন, জাতি সে সকল মুক্তিযোদ্ধা ও বীর নারীর অবদান শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করে। তিনি বলেন, আগামী প্রজন্মকে স্বাধীনতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হওয়ার মধ্য দিয়ে আগামী প্রজন্ম বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান করবে, বাংলাদেশকে ভালোবাসবে ও দেশের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করবে। প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের কুচকাওয়াজ ও শারিরীক কসরত উপভোগ করেন। এ সময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন ফরিদগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিউলী হরি, সহকারি কমিশনার (ভূমি) শারমিন আক্তার, পৌর মেয়র মাহফুজুল হক, ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রকিব, যুদ্ধকালীন এফ.এফ. প্লাটুন কমান্ডার ও মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাই কমিটি ফরিদগঞ্জ উপজেলা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আলী হোসেন ভূঁইয়া, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মো. সহিদউল্লা তপদার, ফরিদগঞ্জ এ.আর. পাইলট মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল আমিন কাজল, প্রেসক্লাবের সভাপতি এমকে মানিক পাঠান, প্যানেল মেয়র মো. খলিলুর রহমান, ফরিদগঞ্জ উপজেলা কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতির চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ ফরিদগঞ্জ পৌর সভাপতি মোতাহের হোসেন রতন, যুবলীগ ফরিদগঞ্জ উপজেলা আহবায়ক আবু সুফিয়ান শাহীন, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক ও কমিনিউটি পুলিশিং এর সভাপতি হেলাল উদ্দিন প্রমুখ। বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেয়া হয়। এ সময় বীর মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ পরিবারের সদস্য, সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারী, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ-কর্মী-সমর্থক, সামাজিক সংগঠনের কর্মীসহ বিভিন্ন স্তরের নাগরিকগণ উপস্থিত ছিলেন। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মহান মুক্তিযুদ্ধে যাঁরা অবদান রেখেছেন- তাদের সকলকে সম্মানের সহিত স্মরণ করা হয় এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবার সদস্য’র প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয়। এদিকে, জাতীয় সংসদ সদস্য কর্তৃক প্রত্তুষে পুষ্পমাল্য অর্পন শেষে বিভিন্ন শিক্ষা, সামাজিক, রাজনৈতিক সংগঠন, সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিগণ পুষ্পমাল্য অর্পন ও বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান বর্ণাঢ্য র‌্যালীর আয়োজন করে। এছাড়া, ফরিদগঞ্জ বঙ্গবন্ধু ডিগ্রী কলেজসহ উপজেলা সদর ও উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন এর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠন নানান কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে যথাযোগ্য মর্য্যাদায় দিবসটি উদযাপন করে। এ সকল আয়োজন থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার লালন, আগামী প্রজন্মকে দেশমাতৃকার সেবায় ও অসাম্প্রদায়িক চেতনায় গড়ে তোলার প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়।

content_copyCategorized under