প্রথম পাতা , ফরিদগঞ্জ , ব্রেকিং নিউজ

চাঁদপুরে ফরিদগঞ্জের ওসির বিরুদ্ধে জঘন্য মিথ্যাচার ছাত্রলীগের ২ নেতা আটক ॥ এমপির নিন্দা

person access_time 3 weeks ago access_time Total : 43 Views

স্টাফ রিপোর্টার ঃ করোনা মোকাবেলায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পুলিশ যখন দিন-রাত অবিরাম দায়িত্ব পালন করে চলেছে তখন চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ থানার ওসি’র বিরুদ্ধে জঘন্যতম মিথ্যাচার করা হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে। করোনা সংক্রমণের কঠিন পরিস্থিতিতে পবিত্র রমজান মাসে ওসি’র বিরুদ্ধে ধর্ষণের মতো বর্বরোচিত মিথ্যাচার করে নিজস্ব চক্রের মাধ্যমে বিষয়টি ভাইরাল করে ছেড়েছে চক্রান্তকারীরা। অবশেষে প্রযুক্তির কল্যাণে মিথ্যাচারকারী দুই ছাত্রলীগ নেতাকে সনাক্ত ও আটক করতে সক্ষম হয়েছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। এরা হলো ফরিদগঞ্জ কালিরবাজার কলেজ ছাত্রলীগ নেতা মামুন হোসেন রুবেল ও ফরিদগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শাহপরান আলম খান রাব্বী। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মুহম্মদ শফিকুর রহমান। ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রকিবের বিরুদ্ধে ২৯ এপ্রিল ঔধৎরহব অভৎরহব জঁসধ নামীয় একটি ফেইসবুক থেকে প্রচার করা হয় যে, ওসি ত্রাণ দিতে গিয়ে উপজেলার ৮নং পাইকপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের চা দোকানদার রফিকুল ইসলামের মেয়ে সালমা (১৯)কে ধর্ষণ করে। এতে ওসি এবং কথিত মেয়েটির ছবিও পোস্ট করা হয়। যা মূহুর্তের মধ্যে পোস্টটি ভাইরাল হয়ে যায়। অথচ সুশ্রী ওই মেয়েটির ছবি গুগল থেকে ডাউনলোড করে জুড়ে দেয়া হয়েছিল। পোস্টটি ভাইরাল হওয়ার পর চাঁদপুরের পুলিশ সুপারের নির্দেশে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। একই সাথে ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ ও চাঁদপুর ডিবি পুলিশ পৃথক তদন্ত শুরু করে তদন্ত কমিটি উল্লে¬খিত ঠিকানায় যেয়ে কথিত চায়ের দোকানদার রফিকুল ইসলাম ও তার মেয়ে সালমার অস্তিত্ব খুঁজে পায়নি। এলাকাবাসী জানায়, ওই এলাকায় রফিকুল ইসলাম নামের কোনো চায়ের দোকানী নেই। এই নামের কোনো ব্যক্তি এবং সালমা নামের কোনো মেয়ে নেই। পুলিশ পরবর্তীতে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার করে ওই ফেইসবুক আইডি নিয়ে তদন্ত করে ফরিদগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়নের পূর্ব পোয়া গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে কালিরবাজার কলেজ ছাত্রলীগ নেতা মামুন হোসেন রুবেলকে আটক করে। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক তার ব্যবহৃত মুঠোফোন, ল্যাপটপ, ডেস্কটপ কম্পিউটার ডিভাইস জব্ধ করে এবং পোস্ট দেওয়ার প্ররোচণার অভিযোগে ফরিদগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শাহপরান আলম খান রাব্বীকেও আটক করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তি প্রদান করে জানায়, জেরিন আফরিন রুমা নামের ফেইসবুক আইডিটি ভুয়া। এটি তারা চালাতো। তারা ফ্যাক ফেইসবুক আইডি থেকে ফরিদগঞ্জ থানার ওসির বিরুদ্ধে মিথ্যা পোস্ট করেছে। এ ব্যাপারে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে শুক্রবার ফরিদগঞ্জ থানায় মামলা (নং ১/১২৬) দায়ের করা হয়। মামলার তদন্ত করছেন চাঁদপুর ডিবি পুলিশের ওসি মোঃ মহিউদ্দিন। বর্তমানে তারা জেল হাজতে আছে। এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাজীগঞ্জ-ফরিদগঞ্জ সার্কেল) মোঃ আফজাল হোসেন জানান, ফেইসবুকের পোস্টটি আমাদের চোখে পড়ার সাথে সাথে পুলিশ সুপারের নির্দেশে আমরা ব্যাপক অনুসন্ধান করেছি। ফরিদগঞ্জ থানাধীন ১৪নং ফরিদগঞ্জ দক্ষিন ইউনিয়নের গজারিয়া নামক গ্রামের কালির বাজারের মিতু কম্পিউটার এন্ড ট্রেনিং সেন্টার নামক দোকান হতে মামুন হোসেন রুবেলকে গ্রেফতার করা হয় এবং ফরিদগঞ্জ থানাধীন গজারিয়া এলাকা হতে শাহপরান আলম খান রাব্বীকে গ্রেফতার করা হয় । তদন্ত এখনো অব্যাহত রয়েছে। এদিকে চাঁদপুর-৪ (ফরিদগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য মুহম্মদ শফিকুর রহমান ফরিদগঞ্জ থানার ওসির বিরুদ্ধে মিথ্যাচার ও আপত্তিকর তথ্য পোস্ট করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত সকলকে আইনের আওতায় আনার আহ্বান জানিয়েছেন। একই সাথে এসব অপরাধীর বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

content_copyCategorized under