চাঁদপুর সদর , শেষ পাতা , ব্রেকিং নিউজ

এক শিশুর সাথে অন্য শিশুর তুলনা নয়–মোঃ মঈনুল হাসান

person access_time 2 months ago access_time Total : 95 Views

স্টাফ রিপোর্টার ঃ চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ মঈনুল হাসান বলেছেন,আপনারা অভিভাবকেরা কখনোই এক শিশুর সাথে অন্য শিশুর তুলনা করতে যাবেন না।এতে শিশুরা মানসিকভাবে আঘাত প্রাপ্ত হতে পারে।শিশুদেরকে খেলাধূলার ছলে তাদের চাহিদা গুরুত্ব দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।তিনি আরো বলেন,শিশুদের কথায় কথায় বেয়াদপ বলার প্রয়োজন নেই,ওদের জানার ও বলার অধিকার রয়েছে।ওদেরকে ওদের মত করে সুন্দর করে গুরুত্ব দিয়ে বুজিয়ে বললেই ওরা বুজতে পারবে।গতকাল ৭ অক্টোবর রবিবার সকাল ১১ টায় জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর আয়োজনে”গড়তে শিশুর ভবিষ্যৎ স্কুল হবে নিরাপদ” প্রতিপাদ্যে বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ -২০১৮ এর শিশু সমাবেশ,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরষ্কার বিতরন অনুষ্ঠানের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।এ সময় তিনি আরো বলেন,শিশুদের তুই তোকারি করে কথা না বলে ওদের তুমি করে কথা বলার প্রয়োজন রয়েছে।এছাড়াও ওদের মেধা বিকাশে চাপ দেওয়া যাবে না।এ সময় তিনি শিশুদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ গড়তে অভিভাবকদের প্রতিটি কথাবার্তায় সতর্কতা অবলম্বন করা প্রয়োজন বলে তিনি মনে করেন।জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ট প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষিকা নুরুন নাহার আক্তার বকুলের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্য রাখেন জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা কাউছার আহমেদ। তিনি বলেন,শিশুরা অনুকরনীয় ও যথেষ্ট আবেগময়ী।তাই ওদের থেকে উচ্চাকাঙ্ক্ষা করা থেকে অভিভাবকদের বিরত থাকতে হবে।কারন অভিভাবকদের নিজের শিশুর সাথের অন্যের শিশুর তুলনা করলে অনেক সময় ওদের ব্রেনে আঘাত লেগে বিপদ হয়ে যেতে পারে।এ সময় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আনসার কমান্ড্যান্ট এ এস এম আজিম উদ্দিন।তিনি বলেন,আজকের শিশু আগামীর ভবিষ্যৎ।তাই ভবিষ্যৎকে ঠিক করে বেড়ে উঠতে দিতে অভিভাবকদের শিশুদের প্রতিটি বেপারে যতœময়ী হতে হবে।এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন,চাঁদপুর প্রেস ক্লাব সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী।তিনি বলেন, অনেক অভিভাবক শিশুদের সামনে গালাগালি করেন এবং পারিবারিক কলহে জড়িয়ে পড়েন।কেউ কেউ সামান্য কিছুতেই শিশুদের গায়ে হাত তুলে বিচার করার চেষ্টা করেন।আমি বলবো শিশুদের ছোট ভুল গুলোতে বকাঝকা বা মারামারিতে না গিয়ে ওদেরকে আদর করে ওদের ভুলটা বুজিয়ে দেয়ায় অভিভাবকদের দায়িত্ব।এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন,জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মহিউদ্দিন আহমেদ।তিনি বলেন,শিশুদের অধিকার নিশ্চিত করনে সারা দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে বিশ্ব শিশু দিবস পালিত হচ্ছে।এতে করে অভিভাবকরা শিশুদের অধিকার ও যতেœ আরো সচেতন হবেন বলে আশা করছি।এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন,জেলা শিশু একাডেমীর সংগীত বিষয়ক প্রশিক্ষক শিল্পী মৃণাল ঘোষ,এস সি টি এফ এর শিশু গবেষক জান্নাতুল ফেরদৌস জুঁই,ইসতিয়ার ইসলাম,শিশু সাংবাদিক তাছনিয়া আক্তার,সাধারন সম্পাদক মোনাইমুল ইসলাম,সাবেক সাধারন সম্পাদক মাইনুদ্দিন নিরব প্রমুখ।এ সময় অনুষ্ঠানে যেমন খুশি তেমন সাজো,ছড়া,আবৃত্তি অভিনয় এবং অভিভাবকদের মিউজ্যিকাল চেয়ার খেলায় অংশ নেয়া বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার প্রদান করা হয়।পরে আমন্ত্রিত অতিথি ও উপস্থিতিদের সামনে শিশু একাডেমীর শিল্পীদের অংশগ্রহনে মনমুগ্ধকর নৃত্য ও সংগীত পরিবেশনা হয়।এর আগে সমাবেশে ঘোষনা হয় আগামী আজ থেকে ১৩ অক্টোবর পর্যন্ত মোট ৭ দিন ৭ টি স্কুলে “ছোটরা বলবে বড়রা শুনবে” প্রতিপাদ্যে বিভিন্ন কার্যক্রম চলবে।

শেয়ার করুনঃ
content_copyCategorized under